1. ssislambd@gmail.com : admin :
  2. ronynet5@gmail.com : Dainik Bagmara : Mahfuzur Rahman
  3. mahfuzur4@gmail.com : Mahfuzur Rahman : Mahfuzur Rahman
শতগুণের ইসবগুলের ভুসি • দৈনিক বাগমারা    
শিরোনাম :
বাগমারা উপজেলা চেয়ারম্যান অনিল কুমার সরকার করোনায় আক্রান্ত বাগমারায় যুব মহিলা লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি শাহিনুর,সম্পাদক পারভীন ৭০ বছর পর ছেলে ফিরে পেলেন মা নারী উন্নয়ন ফোরামের দ্বিমাসিক সভা অনুষ্ঠিত বাগমারায় যুব মহিলা লীগের সম্মেলন সফল করতে পৌর ছাত্রলীগের প্রচার মিছিল বাগমারায় যুব মহিলা লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন সফল করতে প্রচার মিছিল বাগমারার নবাগত ইউএনও ফারুক সুফিয়ানকে ছাত্রলীগের ফুলেল শুভেচ্ছা বাগমারায় পৃথক মামলায় দুই জন কারাগারে বাগমারায় কিস্তির টাকা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় গৃহবধূ কে নির্যাতন বাগমারায় যুব মহিলা লীগের সম্মেলন সফল করতে নুরুল ইসলামের প্রচারণা বাগমারার নতুন ইউএনও কে রক্তদান পরিষদের ফুলেল শুভেচ্ছা বাগমারায় ‘কৃষকের বসতভিটা দখলের অভিযোগ’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ বাগমারার নতুন ইউএনও ফারুক সুফিয়ান বাগমারায় যুব মহিলা লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ঘিরে সাজ সাজ রব বাগমারার যোগীপাড়ায় জোরপূর্বক পাকা ঘর নির্মাণের অভিযোগ




শতগুণের ইসবগুলের ভুসি

অনলাইন ডেস্ক
  • Update Time : শুক্রবার, ১৩ নভেম্বর, ২০২০
  • ৪৪২ Time View

প্রতিমুহুর্ত্বের খবর দ্রুত পেতে পেজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন

ইসবগুলের ভুসি মানুষের শরীরের জন্য খুবই উপকারী। বিশেষ করে এই ভুসি বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। এটি অভ্যন্তরীণ পাচনতন্ত্রের সমস্যায় ঘরোয়া চিকিত্সা ও প্রতিকারের জন্য বেশ উপকারী। এবার তাহলে জেনে নিন ইসবগুলের কিছু গুণাগুণ বিষয়ে—

অ্যাসিডিটির প্রতিকারে : আমাদের প্রায় সবারই কিছু না কিছু অ্যাসিডিটির সমস্যা থাকে, আর ইসবগুল হতে পারে এই অবস্থার ঘরোয়া প্রতিকার। ইসগুল খেলে তা পাকস্থলীর ভেতরের দেয়ালে একটা প্রতিরক্ষামূলক স্তর তৈরি করে, যা অ্যাসিডিটির বার্ন থেকে পাকস্থলীকে রক্ষা করে। এছাড়াও এটি সঠিক হজমের জন্য এবং পাকস্থলীর বিভিন্ন এসিড নিঃসরণে সাহায্য করে। এক্ষেত্রে প্রতিবার খাদ্য গ্রহণের পর ২ চামচ ইসবগুল আধা গ্লাস ঠান্ডা দুধে মিশিয়ে পান করতে হবে।

কোষ্ঠকাঠিন্য দূরীকরণে : ইসবগুলে থাকে কিছু অদ্রবণীয় ও দ্রবণীয় খাদ্য আঁশের চমত্কার সংমিশ্রণ যা কোষ্ঠকাঠিন্য দূরীকরণে ঘরোয়া উপায় হিসেবে খুব ভালো কাজ করে। পাকস্থলীতে গিয়ে এটি ফুলে ভেতরের সব বর্জ্য পদার্থ বাইরে বের করে দিতে সাহায্য করে। কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে প্রতিদিন ঘুমাতে যাওয়ার আগে ২ চামচ ইসবগুলের ভুসি এক গ্লাস কুসুম গরম দুধের সঙ্গে মিশিয়ে পান করতে হবে।

ডায়রিয়া প্রতিরোধে : ইসবগুলের ভুসি ডায়রিয়া প্রতিরোধেও সক্ষম। ডায়রিয়া প্রতিরোধে ইসবগুল দইয়ের সঙ্গে মিশিয়ে খেলে উপকার পাওয়া যায়। কারণ দইয়ে থাকা প্রোবায়োটিক পাকস্থলীর ইনফেকশন সারায় এবং ইসবগুল তরল মলকে শক্ত করতে সাহায্য করে বলে খুব কম সময়েই এটি ডায়রিয়া সারাতে পারে। ডায়রিয়া প্রতিরোধে দিনে দু’বার ভরাপেটে ২ চামচ ভুসি ৩ চামচ টাটকা দইয়ের সঙ্গে মিশিয়ে খেতে হবে।

হার্টের সুস্থতায় : ইসবগুলের ভুসিতে থাকা খাদ্যআঁশ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে আমাদেরকে হূদরোগ থেকে সুরক্ষিত করে। যে কারণে চিকিত্সকরা সব সময় হূদরোগ প্রতিরোধে এধরনের খাবারের পরামর্শ দিয়ে থাকেন। এটি পাকস্থলীর দেয়ালে একটা পাতলা স্তর সৃষ্টি করে। যা খাদ্য হতে কোলেস্টেরল শোষণে বাধা দেয়; বিশেষ করে রক্তের সিরাম কোলেস্টেরলের মাত্রা কমায়। এছাড়াও এটি রক্তের অতিরিক্ত কোলেস্টেরল সরিয়ে দেয়, যা থাকলে ধমনীতে ব্লক সৃষ্টির সম্ভাবনা থাকে।

প্রতিমুহুর্ত্বের খবর দ্রুত পেতে পেজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন




এই পোষ্টটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category










© All rights reserved © 2021 dainikbagmara.com.bd
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
x
error: Content is protected !!