1. ssislambd@gmail.com : admin :
  2. ronynet5@gmail.com : Dainik Bagmara : Mahfuzur Rahman
  3. mahfuzur4@gmail.com : Mahfuzur Rahman : Mahfuzur Rahman
নানা- নাতি মিলে ধর্ষণ, পিতৃত্ব নির্ণয়ে হিমশিম পুলিশ • দৈনিক বাগমারা    
শিরোনাম :
বাগমারায় যুব মহিলা লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সভাপতি শাহিনুর,সম্পাদক পারভীন ৭০ বছর পর ছেলে ফিরে পেলেন মা নারী উন্নয়ন ফোরামের দ্বিমাসিক সভা অনুষ্ঠিত বাগমারায় যুব মহিলা লীগের সম্মেলন সফল করতে পৌর ছাত্রলীগের প্রচার মিছিল বাগমারায় যুব মহিলা লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন সফল করতে প্রচার মিছিল বাগমারার নবাগত ইউএনও ফারুক সুফিয়ানকে ছাত্রলীগের ফুলেল শুভেচ্ছা বাগমারায় পৃথক মামলায় দুই জন কারাগারে বাগমারায় কিস্তির টাকা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় গৃহবধূ কে নির্যাতন বাগমারায় যুব মহিলা লীগের সম্মেলন সফল করতে নুরুল ইসলামের প্রচারণা বাগমারার নতুন ইউএনও কে রক্তদান পরিষদের ফুলেল শুভেচ্ছা বাগমারায় ‘কৃষকের বসতভিটা দখলের অভিযোগ’ শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ বাগমারার নতুন ইউএনও ফারুক সুফিয়ান বাগমারায় যুব মহিলা লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ঘিরে সাজ সাজ রব বাগমারার যোগীপাড়ায় জোরপূর্বক পাকা ঘর নির্মাণের অভিযোগ শ্রীপুরে প্রচারণায় ব্যস্ত জিল্লুর রহমান, মনোনয়ন পেলে বিপুল ভোটে জয়ের আশা




নানা- নাতি মিলে ধর্ষণ, পিতৃত্ব নির্ণয়ে হিমশিম পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • Update Time : শনিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৮১২ Time View
ছবি সংগৃহীত

প্রতিমুহুর্ত্বের খবর দ্রুত পেতে পেজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন

বগুড়া প্রতিনিধি : বগুড়ার ধুনট উপজেলায় এক স্কুলছাত্রীর জন্ম দেয়া সন্তানের পিতৃপরিচয় মিলছে না। পিতার পরিচয় শনাক্ত করতে তৃতীয় দফায় ডিএনএ পরীক্ষা করা হল। জানা গেছে স্কুলছাত্রী একাধিক ব্যক্তি দ্বারা ধর্ষণের শিকার হয়েছিল।

আদালতের আদেশে বৃহস্পতিবার (০৩ সেপ্টেম্বর) দুপুরের দিকে ওই স্কুলছাত্রী ও তার সন্তান এবং ধর্ষককে ঢাকা সিআইডির সদর দপ্তরে ডিএনএ পরীক্ষা করানো হয়।

এর আগে নানা-নাতির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠার পর তাদের ডিএনএ পরীক্ষা করা হয়। কিন্তু ডিএনও প্রতিবেদনে দেখা যায়, ওই নানা-নাতির ডিএনএর সঙ্গে স্কুলছাত্রীর জন্ম নেয়া সন্তানের ডিএনএ মিলছে না।

পরবর্তীতে ওই স্কুলছাত্রীর দেয়া তথ্য মতে একই এলাকার আবু তালেবের ছেলে রাকিব হোসেনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তৃতীয় দফায় রাকিব হোসেনসহ স্কুলছাত্রী ও তার সন্তানের ডিএনএ পরীক্ষা করানো হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ধর্ষণে জন্ম নেয়া সন্তানের মা স্কুলছাত্রী ধুনট উপজেলার বাসিন্দা।

২০১৮ সালের ১৫ এপ্রিল বিকেলে প্রেমিক বকুল মেয়েটিকে ঘরে নিয়ে ধর্ষণের সময় ধরে ফেলেন নানা। ঘটনাটি প্রকাশ করার ভয় দেখিয়ে একই সময় নানা রশিদ মণ্ডলও মেয়েটিকে ধর্ষণ করেন। ধর্ষণে মেয়েটি অন্তঃসত্ত্বা হলে তার বাবা বাদী হয়ে ২০১৮ সালের ৩ অক্টোবর মামলা করেন।

ওই মামলায় নানা রশিদ মণ্ডল ও তার নাতি বকুল হোসেনকে আসামি করা হয়। এ অবস্থায় ধর্ষণের শিকার স্কুলছাত্রী ২০১৯ সালের ১ জানুয়ারি পুত্রসন্তানের জন্ম দেয়।

নবজাতকের জন্মদাতার পরিচয় শনাক্ত করতে নানা রশিদ ও বকুলের ডিএনএ পরীক্ষা করানো হয়। কিন্তু এতে পরিচয় মেলেনি। পরিবর্তীতে আদালতে হাজির করা হলে স্কুলছাত্রী পুনরায় রাকিব হোসেনের নাম প্রকাশ করেন।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ডিএনএ পরীক্ষার প্রতিবেদন হাতে পেলে হয়তো জানা যাবে ধর্ষণে জন্ম নেয়া শিশুটির পিতৃপরিচয়। এ জন্য আরো কিছু দিন অপেক্ষা করতে হবে।

প্রতিমুহুর্ত্বের খবর দ্রুত পেতে পেজে লাইক দিয়ে আমাদের সাথেই থাকুন




এই পোষ্টটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category










© All rights reserved © 2021 dainikbagmara.com.bd
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
x
error: Content is protected !!